Questions of Civic & Good Governance

ভূপৃষ্ঠের পরিবর্তনে বহিঃশক্তির প্রভাব অপেক্ষা অন্তঃশক্তির প্রভাব অতিমাত্রায় প্রবল ও ভয়ঙ্কর। বহিঃশক্তির প্রভাবে ভূপৃষ্ঠের ধীরগতিতে পরিবর্তন আসে এবং এক্ষেত্রে সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি ও জীবনহানির ঘটনা ঘটে না বললেই চলে। তবে অন্তঃশক্তির প্রভাবে ভূপৃষ্ঠের দ্রুত ও আকস্মিক পরিবর্তন ঘটায় সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি ও জীবনহানির আশঙ্কা অতিমাত্রায় পরিলক্ষিত হয়।

 

A. সুনামি’ কি?

B. ‘উপকেন্দ্রে ভূকম্পনের তীব্রতা অতিমাত্রায় পরিলক্ষিত হয়’ ব্যাখ্যা কর।

C. অন্তঃশক্তির প্রভাবে সৃষ্ট ভূপৃষ্ঠের দ্রুত ও আকস্মিক পরিবর্তনের ক্ষয়ক্ষতি হ্রাস করতে তোমার মতামত ব্যক্ত কর।

D. ভূপৃষ্ঠের পরিবর্তনে একটি অন্তঃশক্তির নাম উল্লেখ কর এবং তার ফলে ভূপৃষ্ঠের যেসব বিষয়ে পরিবর্তন আসে তা উল্লেখ কর।

বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ ঘনবসতিপূর্ণ দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম। দেশটির জনসংখ্যার ঘনত্বের কারণে বিশ্ববাসীর নিকট বাংলাদেশের পরিচয় ঘটিয়েছে। জনসংখ্যার বিশালত্ব দেশটির জনগণের মৌলিক চাহিদা পূরণ ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে ত্বরান্বিত করার জন্য হুমকি হিসেবে দেখা দেয়। এমতাবস্থায় বাংলাদেশ সরকার জনসংখ্যা সমস্যাকে ১নং জাতীয় সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে তা নিরসনে ও নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

 

A. জনসংখ্যার আয়তনে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বে কততম?

B. “অসমতল ভূমি অপেক্ষা সমতল ভূমিতে জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি”— ব্যাখ্যা কর।

C. বাংলাদেশে চাষযোগ্য কৃষি জমির ক্ষয়িষ্ণুতার কারণে বিরূপ প্রভাবসমূহ চিহ্নিতপূর্বক তা আলোচনা কর।

D. বাংলাদেশে চাষযোগ্য কৃষি জমির ক্ষয়িষ্ণুতারোধে করণীয় বিষয়সমূহ সম্পর্কে তোমার মতামত ব্যক্ত কর।

রনি বাংলাদেশের নাগরিক। তার দাদা ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় যুক্তরাজ্যে ছিলেন। দেশের সঙ্কটময় মুহূর্তে তিনি হাত গুটিয়ে বসে থাকেননি। সেখানকার বাঙালিদের সংগঠিত করে মিছিল-মিটিং করেন এবং বাংলাদেশের পক্ষে জনমত গঠনের চেষ্টা করেন। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের নাগরিক পল বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন খবরাখবর বিশ্ববাসীকে জানিয়ে দেন এবং বাংলাদেশের পক্ষে জনমত গঠনে ভূমিকা রাখেন।

A. মুক্তিবাহিনী সরকারি পর্যায়ে কয় ভাগে বিভক্ত ছিল?

B. বাংলাদেশ কনসার্ট’ বলতে কী বোঝায়?

C. উদ্দীপকে রনির দাদার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধে কাদের ভূমিকার কথা ফুটে উঠেছে? ব্যাখ্যা কর।

D. ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে পলের মতো ব্যক্তিদের ভূমিকা ছিল অপরিসীম।’ বিশ্লেষণ কর।

হাসান সাহেব পলিথিন ব্যাগ এবং দ্রব্যাদি উৎপাদন ও বিপণন করে ভালো মুনাফা করেন। পলিথিন নিষিদ্ধ হওয়ার আগাম সংবাদ জানতে পেরেই তিনি ২০০০ সাল থেকে পলিথিনের পরিবর্তে পাটজাত দ্রব্যাদি উৎপাদন ও বিপণন শুরু করেন। প্রতিষ্ঠানের মুনাফার পরিমাণ চিত্রের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হলো :

 

A. মিশন কী?

B. ভিশন ২০২১ কেন দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা?

C. পরিকল্পনার কোন বৈশিষ্ট্যের কারণে হাসান সাহেবের পক্ষে ব্যবসার পরিবর্তন সম্ভব হয়েছে? ব্যাখ্যা করো।

D. হাসান সাহেবের পরিবর্তিত সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা বিশ্লেষণ করো।

মাত্র ২২ বছর বয়সে সিরাজউদ্দৌলা সিংহাসনে বসেন। তিনি দেশি ও বিদেশি ষড়যন্ত্রে ক্ষমতাচ্যুত হন।
 

A. ইউরোপের শান্তিচুক্তি কী নামে পরিচিত?

B. চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত বলতে কী বোঝায়?

C. দৃশ্যকল্প-১ বাংলার ইতিহাসের কোন ঘটনাকে ইঙ্গিত করে?

D. ‘দৃশ্যকল্প-২-এর ফল ছিয়াত্তরের মন্বন্তর’ উক্তিটি বিশ্লেষণ করো।